ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম

Photo of author

By admin

প্রিয় ভিজিটর আপনারা যারা ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম জানতে চাচ্ছেন। তাদের জন্য নিয়ে আসলাম আমাদের আজকের এই টিপস সম্পর্কিত আর্টিকেলটি। আপনারা যাতে খুব সহজে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে পারেন। তার সমস্ত তথ্য নিয়ে আজকে আমরা হাজির হলাম। যাতে করে এ সকল নিয়ম দেখে আপনারা খুব সহজে অ্যাকাউন্টটি খুলতে পারেন।

আপনি কি ইসলামী ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম জানতে চাচ্ছেন। তাহলে আমাদের এই আর্টিকেলটি আপনাদের জন্য। কারণ বর্তমানে ট্রা অধিকাংশ লোকজনই বিভিন্ন জায়গায় অনলাইন প্লাটফর্মে কাজ করে থাকে। তাই তাদের টাকা-পয়সার লেনদেন বা উঠানামা করার জন্য অবশ্যই ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট থাকা প্রয়োজন। তাই তারা কিভাবে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলবে তার কিছু তথ্য নিয়ে যেতে দিলাম।

ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খোলার নিয়ম

বর্তমানে বিশ্বে প্রায় হাজারো লোক আছে যারা কিনা অনলাইন প্লাটফর্মে কাজ করে থাকে। ঠিক তেমনি আমাদের এই বাংলাদেশে হাজার লোক যারা আউটসোর্সিং করে থাকে। এ আউটসোর্সিং করার সময় তারা যখন পেমেন্ট পায় তখন সে সকল টাকাগুলো ইসলামী ব্যাংকের মাধ্যমে উঠাতে হয়। তাই অনেকের মধ্যে এই ব্যাংকের অ্যাকাউন্টটি আছে। যাদের এই একাউন্টটি খোলা নেই তারা আমাদের এই নিচের তত্ত্বের ভিত্তি করে খুলতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংকের কি কি ধরণের একাউন্ট রয়েছে

অনেকের মনে প্রশ্ন যে ইসলামী ব্যাংকে কি কি ধরনের অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম রয়েছে। তো নিচে আমরা পয়েন্ট আকারে আপনাদের জন্য ইসলামী ব্যাংকের নিয়ম গুলো দিয়ে দিলাম। যাতে করে এই নিয়মগুলো দেখে বুঝতে পারেন যে কি কি ধরনের অ্যাকাউন্ট রয়েছে ইসলামী ব্যাংকের মধ্যে। তাই পয়েন্ট গুলো ফল করুন।

  • আল ওয়েহেদিয়া কারেন্ট অ্যাকাউন্ট। 
  • মুদারাবা স্পেসিয়াল কারেন্ট অ্যাকাউন্ট (MSNA)
  • মুদারাবা প্যরুল অ্যাকাউন্ট 
  • মুদারাবা ফরিএগ্ন কারেঞ্চ্য দিপুসিট অ্যাকাউন্ট (MFCD)
  • মুদারাবা ওয়াকফ কাশ দিপুসিট অ্যাকাউন্ট (MWCDA)
  • মুদারাবা অপহার দিপুসিট

সেভিংস একাউন্ট

  • (MSA)
  • (SMSA)
  • (MFSA)
  • (MIESA)
  • (MSSSA)

মান্থলি সেভিংস সিমস

  • (MSSA)
  • (MMSA)
  • (MHSA)
  • (MBS)
  • (MESS)
  • (MEHDS)

টার্ম ডিপোজিটস

  • (MTDR)
  • (MMPDA)
  • (MSB)
  • (MNSB)

ইসলামী ব্যাংক কারেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনারা যারা ইসলামী ব্যাংকে কারেন্ট একাউন্ট খুলতে চান। তারা চাইলে আপনার নিকৃষ্ট ইসলামী ব্যাংকের মাধ্যমে খুব সহজেই সেখান থেকে একাউন্টটি খুলতে পারবেন। এজন্য আপনাকে অবশ্যই সেখানে আপনার যাবতীয় সকল তথ্যগুলো নিয়ে যেতে হবে। একাউন্ট খোলার জন্য যা প্রয়োজন তা নিচে দিয়ে দিব।

ইসলামী ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে

তো নিচে আপনাদের ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে কি কি ধরনের কাগজপত্র লাগবে তার তালিকা দিয়ে দিলাম। যাতে করে আপনারা যখন ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট খুলতে যাবেন এ সকল কাগজপত্র অবশ্যই সাথে নিয়ে যেতে হবে। এ সকল একটা কাগজপত্র যদি সাথে না নিয়ে যান তাহলে আপনি অ্যাকাউন্ট গুলো খুলতে পারবেন না। তাই অবশ্যই নিজের তালিকা গুলো ফলো করুন।

  • জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি।
  • ২ কপি পাসপোর্সট সাইজের ছবি।
  • যে অ্যাকাউন্ট খুলবে তার পরিচিত একজনের জাতীয় পরিচয়পত্রের এক কপি ছবি।
  • রেগুলার ট্রেড লাইসেন্স এর ফটোকপি
  • যে অ্যাকাউন্ট খুলবে তার স্বাক্ষর।
  • আর প্রথমে আপনাকে এক হাজার টাকা ইনস্ট্যান্ট ডিপোজিট করতে হবে।

অনলাইনের মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংকের একাউন্ট খোলার নিয়ম

বাংলাদেশের প্রায় অধিকাংশ লোকই এখন অনলাইন ভিত্তিক কাজগুলো করে থাকে। আপনারা যারা ইসলামী ব্যাংকে গিয়ে একাউন্ট যেরকম ভাবে খুলেন। ঠিক তেমনি আপনাকে অনলাইনে মাধ্যমেও আপনাকে যাবত কাগজপত্র এবং তথ্যগুলি দিয়ে অনলাইনে মাধ্যমে একাউন্টগুলো খুঁজতে হবে। এজন্য অবশ্যই অ্যাকাউন্টটি যদি অনলাইনে করে থাকেন তাহলে। আপনাকে সেই একাউন্ট করা অনলাইনে ফটোকপিটি সে ব্যাংকে জমা দিতে হবে। এভাবে আপনি অনলাইনে মাধ্যমে কন্ট্রোল খুলতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংক সেভিংস একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে

এখনকার সময়ে আপনারা যারা ইসলামী ব্যাংকের সেভিংস করতে চাচ্ছেন। তাদের জন্য সেভিংস একাউন্ট অবশ্যই খুলতে হবে ইসলামী ব্যাংকে আগে। আর এই সেভিংস অ্যাকাউন্ট গুলো খুলতে কি কি ধরনের কাগজপত্র প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র লাগে তার নিচে পয়েন্ট টা করে দিয়ে দিলাম।

  • জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি।
  • ২ কপি পাসপোর্সট সাইজের ছবি।
  • যে অ্যাকাউন্ট খুলবে তার পরিচিত একজনের জাতীয় পরিচয়পত্রের এক কপি ছবি।
  • যে অ্যাকাউন্ট খুলবে তার স্বাক্ষর।
  • আর প্রথমে আপনাকে এক হাজার টাকা ইনস্ট্যান্ট ডিপোজিট করতে হবে।

প্রাতিষ্ঠানিক সেভিংস একাউন্ট খুলতে কি কি লাগে

এই সময়ে বাংলাদেশে বেশিরভাগ জায়গাতেই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তৈরি হয়েছে। আর সেখানে প্রায় লোকই প্রতিষ্ঠান বিষয়ে কিছু সেভিংস করতে চায়। তাই এ সকল মানুষেরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পছন্দ করে থাকে ইসলামী ব্যাংক টি। প্রাতিষ্ঠানিক সেভিংস করতে ইসলামী ব্যাংক একাউন্ট করতে কি কি কাগজপত্র লাগে তার কিছু তথ্য নিচে দিয়ে দিলাম।

  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে করতে হলে ম্যানেজিং কমিটি দ্বারা রেজুলেশন সাথে নিয়ে যেতে হবে।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের যে পরিচালক তার দুই কপি ছবি লাগবে।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের যে পরিচালক তা জাতীয় পরিচয় পত্র এ ফটোকপি লাগবে।
  • আর অন্য কোম্পানি হলে মেমোরিড দাম আর্টিকেল অফ অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা আপনার লেখাটিকে সত্যায়িত করে রাখতে হবে।
পরিশেষে

আমরা চেষ্টা করেছি আপনাদেরকে খুব সহজে ইসলামী ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে তথ্য গুলো দিয়ে। আশা করছি আপনারা আমাদের এই আর্টিকেলটি যদি ফাস্ট ওলাস্ট করে থাকেন। তাহলে আপনিও চাইলে নিজের একাউন্টগুলো নিজেই খুলতে পারবেন। এবং অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে আপনাদের যে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র কথা বললাম তার সাথে নিয়ে যেতে হবে। ধন্যবাদ আমাদের এই আর্টিকেলটি ভালোভাবে পড়ার জন্য।